শিরোনাম :
সাপ্তাহিক আলোর মনি পত্রিকার অনলাইন ভার্সনে আপনাকে স্বাগতম। # সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের সঙ্গেই থাকুন। -ধন্যবাদ।
শিরোনাম :
স্থবির লালমনিরহাটের সাংস্কৃতিক অঙ্গন লালমনিরহাটে ২০২৩-২০২৪ ইং অর্থ বছরে ইউনিয়ন উন্নয়ন সহায়তা খাতের আওতায় সরবরাহকৃত মালামাল বিতরণ অনুষ্ঠিত লালমনিরহাটে সংখ্যালঘুদের নির্যাতন-নিপীড়ন অনতিবিলম্বে বন্ধের দাবিতে সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত লালমনিরহাটে নদী-নালা, খাল-বিলে ধরা পড়ছে না দেশী প্রজাতির মাছ প্রশ্ন ফাঁস কেলেঙ্কারিতে জড়িত থাকায় লালমনিরহাটের আদিতমারীতে আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতিকে বহিষ্কার! লালমনিরহাটে অ্যাড. মোঃ মতিয়ার রহমান এমপির সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত লালমনিরহাট পৌরসভার ২০২৪-২০২৫ অর্থ বছরের প্রস্তাবিত বাজেট ঘোষণা ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত লালমনিরহাটে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ এর উদ্যোগে বৃক্ষরোপন কর্মসূচী অনুষ্ঠিত লালমনিরহাটে হারিয়ে যাচ্ছে গ্রামীণ ঐতিহ্য মৃৎ শিল্প লালমনিরহাটে বিজিবি মহাপরিচালক কর্তৃক বন্যাদূর্গতদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠিত
চলছে করোনা কাল : লালমনিরহাটে ব্যবসা-বাণিজ্য অস্থিতিশীল বাড়ছে বেকারত্ব ও ভিক্ষুকের সংখ্যা

চলছে করোনা কাল : লালমনিরহাটে ব্যবসা-বাণিজ্য অস্থিতিশীল বাড়ছে বেকারত্ব ও ভিক্ষুকের সংখ্যা

আলোর মনি ডটকম ডেস্ক রিপোর্ট: লালমনিরহাট জেলার ৫টি উপজেলায় গত মার্চ মাসের ২৫ তারিখে সাধারণ ছুটির ঘোষণা থেকে এবং বর্তমান সময় পর্যন্ত সকল প্রকার উৎপাদনশীল বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান ও খাদ্য সামগ্রী বিক্রয় প্রতিষ্ঠানগুলোতে মারাত্বক অস্থিতিশীলতা চলছে। ব্যবসায়ীদের ধারণা কারোনার মহামারীতে ব্যবসার পরিস্থিতি ভালো হতে পারছে না।

 

বিডিআর হাট ও বড় মসজিদ সংলগ্ন ইলেকট্রনিক্স ব্যবসায়ী ফরহাদ সোহেল, আনোয়ার হোসেনসহ একাধিক ব্যবসায়ী জানান, কোন কোন দিন দোকান খুলে একটা মালও বিক্রি করতে পারে না। তারা জানায় করোনা প্রাদুর্ভাবের পরে হয়তো এ মন্দা অবস্থা থাকবে না। সেই সাথে বেড়েছে ভিক্ষুক ও সাহায্য প্রার্থীর সংখ্যাও। সকাল ও সন্ধ্যায় বিভিন্ন গন্তব্যে যাত্রী ও আগত যাত্রীরা অনেক সময় গাড়িতে উঠানামা করতে গিয়ে ভিক্ষুক ও সাহায্য প্রার্থীদের হাকডাকে বিরক্তি বোধ করতে হয়। কাপড় ব্যবসায়ীদেরও বিক্রি নেই। দোকান ও তাদের গোডাউনে কাপড় ভড়ে রয়েছে। এছাড়াও ভারতীয় কাপড় বাজার দখলে নেয়ায় দেশি কাপড়ের কদর কমেছে। বর্তমান সরকারের আমলে নিম্ন ও বেকারত্বের স্বীকার সাধারণ মানুষ যেন স্বপ্ন দেখার কথা ভাবছে। কেউ কেউ উপহাস করতে শুরু করছে। কারণ নিম্ন আয়ের মানুষ চায় তাদের খাদ্য, নিরাপত্তা, স্বাস্থ্য সেবা। এর কোনটিই নিরাপত্তা নেই বরং বেড়েছে খাদ্য ও চিকিৎসা ব্যয়। ফলে দিন যাচ্ছে আর বেকারত্ব ও ভিক্ষুকের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। ব্যবসায়ী মহল এ হতাশা কবে নিরসন হবে তা নিয়ে প্রহর গোনা ছাড়া আর কোন উপায় নেই বলে মন্তব্য করেছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Design & Developed by Freelancer Zone