শিরোনাম :
সাপ্তাহিক আলোর মনি পত্রিকার অনলাইন ভার্সনে আপনাকে স্বাগতম। # সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের সঙ্গেই থাকুন। -ধন্যবাদ।
শিরোনাম :
অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী কল্যাণ সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ২০২৪ এর পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত প্রেসক্লাব লালমনিরহাটের নতুন সদস্য ২০জনের চুড়ান্ত অনুমোদন শব্দহীন কবিতার অবয়ব ভাটিবাড়ী লোকনাট্য দলের আহবায়ক কমিটি গঠন অনুষ্ঠিত মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত পাটগ্রাম তাহেরা বিদ্যাপীঠে বার্ষিক ক্রীড়া, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত লালমনিরহাট কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার মাতৃভাষা দিবসের শ্রদ্ধা জানাতে প্রস্তুত সুলতানুল আউলিয়া, ইনসানে অলীয়ে কামেল হযরত শাহ্ নওগজি (রহঃ) এর বাৎসরিক মহা পবিত্র ওরছ মোবারক লালমনিরহাটে নবনির্বাচিত জাতীয় সংসদ সদস্য অ্যাড. মোঃ মতিয়ার রহমান এর সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত

বীরমুক্তিযোদ্ধার জমি দখল, প্রাণনাশের হুমকি

আলোর মনি রিপোর্ট: লালমনিরহাট জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার মদাতি ইউনিয়নের শাখাতি এলাকার বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদের (নগর) এর জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে।

 

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদের (নগর) ১৯৯২ সালে তার বড় ভাই মৃত্যু আহসান আলী ফটিক চান এর নিকট ২৮হাজার টাকায় ৬৭শতক জমি ক্রয় করে খাজনা দিয়ে ভোগদখল করে আসছে।

 

জমি ক্রয়ের পর বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদের (নগর) এর বড় ভাই আহসান আলী ফটিক চান জমিটি কবলা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে বিভিন্ন টালবাহানা শুরু করে ১৯৯৯ সালে মৃত্যু বরন করে। তার মৃত্যুর পর ছেলেরা ছলচাতুরী শুরু করে।

 

সাম্প্রতি বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদের (নগর) এর পরিবার মৃত্যু আহসান আলী ফটিক চান এর ছেলেদের নিকট জমিটি কবলা করার দাবি করলে তারা কবলা দিতে অনিচ্ছুক প্রকাশ করে। পারিবারিক ভাবে বিষয়টি মিমাংসা করতে চাইলেও তারা মিমাংসায় অস্বীকৃতি জানায়।

 

একপর্যায়ে বিবাদী সাইফুল ও হাফিজারের উস্কানিতে রমজান এবং রাজ্জাকুল জমিটি জোরপূর্বক দখল দেয়। এতে বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদের (নগর) এর স্ত্রী স্কুল শিক্ষিকা রেজিনা বেগম জমি দখলে বাঁধা দিলে বিবাদীরা তাকে গালিগালাজ ও বিভিন্ন প্রকার হুমকি প্রদর্শন করে আক্রমণ করার জন্য এগিয়ে আসলে তিনি ঘটনাস্থলে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে।

 

বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদের (নগর) এর স্কুল শিক্ষিকা স্ত্রী রেজিনা বেগম বলেন, আমি আইনের প্রতি শ্রদ্ধারেখে মদাতি ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের নিকট একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছি। আমি এর সঠিক বিচার চাই।

 

বিবাদী সাইফুল ইসলাম বলেন, আমার বাবা জমি বিক্রি করছে কিনা যানি না। যদি বিক্রি করে থাকে তাহলে কাগজ দেখালে আমরা জমির দখল ছেড়ে দিবো।

 

মদাতি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের জাহাঙ্গীর আলম বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদের (নগর) তার ভাইয়ের কাছে জমিটি ক্রয় করেছিল তা আমি জানি। আহসান আলী ফটিক চানের মৃত্যুর পর তার ছেলেরা তা অস্বীকার যাচ্ছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Design & Developed by Freelancer Zone