শিরোনাম :
সাপ্তাহিক আলোর মনি পত্রিকার অনলাইন ভার্সনে আপনাকে স্বাগতম। # সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের সঙ্গেই থাকুন। -ধন্যবাদ।
শিরোনাম :
লালমনিরহাটে বৈষম্যমূলক কোটা ব্যবস্থার সংস্কারের যৌক্তিক দাবীতে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত লালমনিরহাটে সাধারণ শিক্ষার্থীবৃন্দের বিক্ষোভ মিছিল ও অবস্থান কর্মসূচি! ভারতের সিকিম রাজ্যের প্রাক্তণ শিক্ষা মন্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার! লালমনিরহাটে ২ ছাত্রলীগের নেতার পদত্যাগ! লালমনিরহাটে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও সন্তান কমান্ডের মানববন্ধন ও স্মারক লিপি প্রদান লালমনিরহাটে পবিত্র আশুরার প্রস্তুতি চলছে লালমনিরহাটের পাটগ্রামে জমি জবর দখলের চেষ্টায় থানায় অভিযোগ! লালমনিরহাটে জেলা প্রেস ক্লাব লালমনিরহাট এর কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন অনুষ্ঠিত লালমনিরহাটে জেলা ট্রাক, ট্যাংকলড়ী ও কাভার্ড ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের সম্পাদকে বহিস্কার! লালমনিরহাটে বিএসটিআই এর মোবাইল কোর্টের অভিযানে ৩৫হাজার টাকা জরিমানা
লালমনিরহাটে বিদ্যুতের খুঁটিজুড়ে তারের জঞ্জালে বাড়ছে বিপদ

লালমনিরহাটে বিদ্যুতের খুঁটিজুড়ে তারের জঞ্জালে বাড়ছে বিপদ

আলোর মনি ডটকম ডেস্ক রিপোর্ট: বিদ্যুতের খুঁটিজুড়ে তারের বোঝা। তারের জটলা এমন দৃশ্য লালমনিরহাট জেলা শহরের বেশির ভাগ বিদ্যুতের পোলগুলোতে। বিদ্যুতের খুঁটিগুলোর অনেকটাই তারে খেয়ে ফেলেছে। তারে ঢাকা পড়েছে বিদ্যুতের খুঁটিগুলো। এতে করে প্রতিনিয়তই ঘটছে ছোট-বড় দুর্ঘটনা।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, সাপটানা বাজার, বাহাদুর মোড়, পুরান বাজার, মোগলহাট রেল গেট, বিডিআর গেট, আলোরূপা মোড়, বসুন্ধরা, নর্থবেঙ্গল মোড়, টিএনটি, ভোকেশনাল মোড়, ক্যান্টিন মোড়, কলেজ বাজার, ডাক বাংলো, মিশন মোড় চত্বর, সেনা মৈত্রী হকার্স মার্কেট, রেল বাজার, স্বর্ণকার পট্টি, গোশালা বাজার, থানাপাড়া, হাসপাতাল রোড, পূর্ব সাপটানাসহ গুরুত্বপূর্ণ এলাকার মোড়গুলোর প্রতিটি বিদ্যুৎ ও ল্যান্ডফোন লাইনের খুঁটিই তারের জটলায়। এই তারগুলোর বড় অংশ ডিস লাইন ও ইন্টারনেট লাইনের। কোন কোম্পানীর তার কিভাবে পেঁচানো রয়েছে তা বোঝারও উপায় নেই।

বিদ্যুৎ খুঁটিগুলোতে প্রতিনিয়তই ভারাক্রান্ত হচ্ছে তারের জটলায়। ডিশ লাইনের সংযোগ তারের জটের কারণে ঢাকা পড়ে যাচ্ছে বিদ্যুৎ সংযোগ তারগুলো। লালমনিরহাট পৌরসভার সব এলাকার সড়কগুলোতে বিদ্যুতের খুঁটিতে খুঁটিতে রয়েছে ডিশের তারের জটলা। মূল সড়ক কিংবা গলি সব জায়গাতে তারের জটলা চোখে পড়ে। আবার ডিশ লাইনের বক্সের ভেতরে দেখা যায় পাখির বাসা। এই বাসাতে প্রায় সর্ট সার্কিটে আগুন লাগে। তবুও সড়কগুলোর বিদ্যুৎ খুঁটিতে ডিশ লাইনের তার অপসারণ করতে নর্দান ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানীর (নেসকো)র কোনো পদক্ষেপ নেই।

এদিকে বৈদ্যুতিক খুঁটিতে ডিশ লাইনের তার ঝুলে থাকার কারণে (নেসকো) বিদ্যুৎ লাইনের সংযোগ মাঝে মাঝে বিছিন্ন হওয়ার ঘটনাও ঘটে।

 

নেসকো জানান, বৈদ্যুতিক খুঁটির সঙ্গে ডিশ লাইনের সংযোগ দেয়া সম্পূর্ণ অবৈধ। কারণ খুঁটির সঙ্গে সরকারি বিদ্যুতের তার ছাড়া অন্য কোনো তারের সংযোগ দেয়া যাবে না। যারা ডিশ লাইনের ব্যবসা করছেন তারা নিজের ইচ্ছাতে বিদ্যুতের খুঁটি ব্যবহার করে ডিশ লাইনের সংযোগ দিচ্ছেন। ডিশ সংযোগকারীদের নিষেধ করা হলেও তারা কোনো তোয়াক্কা করে না।

নেসকো আরও জানায়, তারগুলোর কারণে মাঝে মধ্যেই শর্টসার্কিট হচ্ছে। অনেক সময় ট্রান্সফরমারের সঙ্গে লেগে ট্রান্সফরমারে আগুন ধরছে, সেটি আশপাশের বাড়ি বা দোকানে ছড়িয়ে পড়ছে।

 

লালমনিরহাট পৌরবাসী বলছেন, তারের জঞ্জালের কারণে, তারের জঞ্জাল ঝুঁকিপূর্ণ। জঞ্জালমুক্ত পৌরসভা গড়তে এখই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

 

লালমনিরহাট পৌরসভা সূত্র জানিয়েছে, ইন্টারনেট ও স্যাটেলাইট ক্যাবল অপারেটরদের তারের জঞ্জালে সরাতে বারবার তাগিদা দিয়েছেন লালমনিরহাট পৌরসভা কর্তৃপক্ষ। এরপরও তারের জঞ্জাল সরাচ্ছে না তারা। বিভিন্ন বিদ্যুতের খুঁটি ও ল্যাম্প পোস্টের সাথে অতিরিক্ত তার পেচিয়ে রাখছে ইন্টারনেট ও স্যাটেলাইট ক্যাবল অপারেটরা।

 

নেসকো বলেন, বৈদ্যুতিক খুঁটিতে ডিশ লাইন সম্পূর্ণ অবৈধ। তাদের অনুমতি দেওয়া হয়নি বৈদ্যুতিক খুঁটিতে ডিশ লাইনের। অতিদ্রুতই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Design & Developed by Freelancer Zone