শিরোনাম :
সাপ্তাহিক আলোর মনি পত্রিকার অনলাইন ভার্সনে আপনাকে স্বাগতম। # সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের সঙ্গেই থাকুন। -ধন্যবাদ।
শিরোনাম :
লালমনিরহাটে বৈষম্যমূলক কোটা ব্যবস্থার সংস্কারের যৌক্তিক দাবীতে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত লালমনিরহাটে সাধারণ শিক্ষার্থীবৃন্দের বিক্ষোভ মিছিল ও অবস্থান কর্মসূচি! ভারতের সিকিম রাজ্যের প্রাক্তণ শিক্ষা মন্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার! লালমনিরহাটে ২ ছাত্রলীগের নেতার পদত্যাগ! লালমনিরহাটে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও সন্তান কমান্ডের মানববন্ধন ও স্মারক লিপি প্রদান লালমনিরহাটে পবিত্র আশুরার প্রস্তুতি চলছে লালমনিরহাটের পাটগ্রামে জমি জবর দখলের চেষ্টায় থানায় অভিযোগ! লালমনিরহাটে জেলা প্রেস ক্লাব লালমনিরহাট এর কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন অনুষ্ঠিত লালমনিরহাটে জেলা ট্রাক, ট্যাংকলড়ী ও কাভার্ড ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের সম্পাদকে বহিস্কার! লালমনিরহাটে বিএসটিআই এর মোবাইল কোর্টের অভিযানে ৩৫হাজার টাকা জরিমানা

দাদন ব্যবসায়ীদের কবলে সাধারণ মানুষ! 

আলোর মনি ডটকম ডেস্ক রিপোর্ট: লালমনিরহাট জেলার কালীগঞ্জ উপজেলায় লাভলী বেগম নামে এক দাদন ব্যবসায়ীর অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন করেছেন তিস্তার তীরবর্তী ছিন্নমূল মানুষ। শুধু কালীগঞ্জ নয় জেলা সদরেও দাদন ব্যবসায়ীর অত্যাচারে সর্বশান্ত হয়েছেন অনেক পরিবার।

 

মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) দুপুরে লালমনিরহাট-বুড়িমারী মহাসড়কে কালীগঞ্জ উপজেলার ভুল্লারহাট বাজারে বৃষ্টিতে ভিজে এক ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন করেন এলাকাবাসী। অভিযুক্ত দাদন ব্যবসায়ী লাভলী বেগম উপজেলার ভোটমারী ইউনিয়নের দক্ষিণ ভুল্লারহাট এলাকার শফিকুল ইসলাম এর স্ত্রী।

 

মানববন্ধনে অংশ নেওয়া গ্রামবাসী জানান, লাভলী বেগম দীর্ঘদিন থেকে দাদন ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। তিস্তার চরাঞ্চলের ছিন্নমূল মানুষের অভাবের সুযোগকে কাজে লাগিয়ে চরা সুদে দাদন ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। স্ট্যাম্প ও চেকের বিপরীতে চরা সুদে টাকা দিয়ে সুদাসলে কয়েকগুণ আদায় করার পরেও স্ট্যাম্প ও চেক মূলে মামলা করে ছিন্নমূলদের হয়রানি করে আসছেন। তার রয়েছে বিশাল লাঠিয়াল বাহিনী। প্রতিবাদ করলে লাঠিয়াল বাহিনী দিয়ে শায়েস্তা করে মিথ্যা মামলায় আসামী করে জেলে পাঠায়। দাদন ব্যবসায়ী লাভলী বেগম তার লাঠিয়াল বাহিনী দিয়ে মাদক ব্যবসাও নিয়ন্ত্রণ করেন। স্থানীয় তরুণীদের চাকরী দেওয়ার নামসহ বিভিন্নভাবে ফাঁসিয়ে যৌন ব্যবসায় বাধ্য করানো হচ্ছে। লাভলীর বাড়িতে মিনি পতিতালয় রয়েছে বলেও মানববন্ধনে স্থানীয়রা অভিযোগ করেন।

 

তার চরা সুদ দিতে ব্যর্থ হয়ে অনেকেই বাড়ি ছাড়া হয়েছেন। কয়েকজন তার দাবি পূরণে ব্যর্থ হয়ে আত্মহত্যার পথ বেঁচে নিতে বাধ্য হয়েছেন। তার অপকর্মের প্রতিবাদ করলেই মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করা হয়। এসব কাজ সুকৌশলে সম্পন্ন করতে লাভলী বেগম স্থানীয় প্রশাসনের সঙ্গে সখ্যতা গড়ে তুলেছেন বলেও স্থানীয়দের অভিযোগ। তার এ অপকর্ম থেকে মুক্তি পেতে ভুক্তভোগী ও গ্রামবাসী বৃষ্টিতে ভিজে মহাসড়কে দাঁড়িয়ে মানববন্ধন করে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

 

মানববন্ধনে বক্তব্য দেন- ভোটমারী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হযরত আলী, ভোটমারী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আবির হোসেন চৌধুরী, ভোটমারী ইউনিয়ন ছাত্রদলের সভাপতি সোহানুর রহমান মিঠুন, আনসার-ভিডিপির কমান্ডার সাইফুর রহমান, সমাজসেবক সাইদুল ইসলাম প্রমুখ।

সংবাদটি শেয়ার করুন




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Design & Developed by Freelancer Zone