শিরোনাম :
সাপ্তাহিক আলোর মনি পত্রিকার অনলাইন ভার্সনে আপনাকে স্বাগতম। # সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের সঙ্গেই থাকুন। -ধন্যবাদ।
শিরোনাম :
দেশবাসীকে সাপ্তাহিক আলোর মনি’র ঈদ-উল-আযহার শুভেচ্ছা লালমনিরহাটে কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা-২০২৪ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত লালমনিরহাটে জাতীয় মহাসড়কের ডিভাইডারে ঝুঁকিপূর্ণ বিলবোর্ড স্থাপন! লালমনিরহাটের সাংবাদিক মোঃ মিজানুর রহমান-এঁর শুভ জন্মদিন পালিত লালমনিরহাটের হযরত শাহ্ কবির (রহঃ) বড়দরগাহ মাজার শরীফ লালমনিরহাটে ছাত্রলীগের সভাপতি ও তার সহযোগীদের গ্রেফতারের দাবীতে- মানববন্ধন অনুষ্ঠিত লালমনিরহাটের প্রবেশদ্বার মিশন মোড় গোলচত্ত্বরের ফোয়ারার স্থলে এখন ঘাস লাগানো হয়েছে তোমরা ভবিষ্যৎ জাতি গঠনের কারিগর : সংবর্ধনায় অধ্যক্ষ আসাদুল হাবিব দুলু লালমনিরহাটে ক্ষতিকারক ইউক্যালিপটাস গাছ ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে লালমনিরহাটের বটতলার সড়কবাতি জ্বলে না!
সৌর বিদ্যুৎ লালমনিরহাটের চরাঞ্চলের গ্রামগুলোতে সভ্যতার ছোঁয়া

সৌর বিদ্যুৎ লালমনিরহাটের চরাঞ্চলের গ্রামগুলোতে সভ্যতার ছোঁয়া

আলোর মনি ডটকম ডেস্ক রিপোর্ট: সৌর বিদ্যুৎ এর আলোয় সভ্যতার ছোঁয়া লেগেছে লালমনিরহাটের চরাঞ্চলের গ্রামগুলোতে। বদলে গেছে এখানে বসবাসকারীদের জীবনযাত্রার মান। কিছুদিন আগেও যেখানে রাতের আধাঁরে কাটত মাটির প্রদীপ, কেরসিনের কুপি ও হ্যারিকেনের মিটমিটে আলোয়। সেই সব গ্রামগুলো এখন সৌর বিদ্যুৎ এর আলোয় আলোকিত হচ্ছে।

 

লালমনিরহাট জেলার ৫টি (লালমনিরহাট সদর, আদিতমারী, কালীগঞ্জ, হাতীবান্ধা, পাটগ্রাম) উপজেলার বুক চিরে বয়ে যাওয়া তিস্তা, বুড়ি তিস্তা, ধরলা, রত্নাই, স্বর্ণামতি, সানিয়াজান, সাকোয়া, মালদহ, ত্রিমোহীনি, মরাসতি, গিরিধারী, গিদারী, ধোলাই, শিংগীমারী, ছিনাকাটা, ধলাই, ভেটেশ্বর নদীর ভাঙ্গা গড়ার খেলায় সৃষ্টি হয়েছে ছোট বড় অসংখ্য চরাঞ্চল। ধীরে ধীরে তা বাসযোগ্য হওয়ায় মানুষ সেখানে বসতি স্থাপন করে। ক্রমে তা জনবসতিপূর্ণ এলাকায় পরিণত হলেও দুর্গম হওয়ায় সেখানে এখনো পৌছায়নি বৈদ্যুতিক সুবিধা। কিছুদিন আগেও সূর্যাস্তের পরে অন্ধকারে ঢেকে যেত এ চরাঞ্চলের গ্রামগুলো। আধাঁর কাটতে ব্যবহৃত হতো মাটির প্রদীপ, কেরোসিনের কুপি ও হ্যারিকেন। এর মিটমিটে আলোয় প্রয়োজনীয় কাজ সেরে মানুষ দ্রুত ঘুমাতে যেত। এরপর বাকি রাত কেটে যেত নির্জনতায়। চরাঞ্চলের এ চিত্র এখন অতীত। সরকার প্রতিশ্রুত “মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগ ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ” পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে গৃহীত সোলার প্যানেল প্রকল্পের আওতায় বদলে গেছে বিদ্যুৎ বঞ্চিত চরাঞ্চলের এ গ্রামগুলোর অবস্থা। প্রায় প্রত্যেকের বাড়ির টিনের ঘরের চালায় শোভা পাচ্ছে বিনামূল্যে পাওয়া সোলার প্যানেল। রাতের আধাঁর কাটে এখন সৌর বিদ্যুৎ এর আলোয়। কখনো ঘরের বেড়ার ফাক গলিয়ে সে আলো রুপালী বালুতে পড়ায় চিকচিক করে। শুধু আলো নয় এ বিদ্যুৎ এ চলে টেলিভিশন, ফ্যানসহ বিভিন্ন ইলেকট্রনিক্স সামগ্রী। চার্জ দেওয়া যায় মুঠোফোনে। ফলে সভ্যতার ছোঁয়ায় জীবন উপভোগ করছে তারা। রাতের নির্জনতাকে কাটিয়ে অনেক রাত পর্যন্ত কোলাহল ও আনন্দমুখর থাকে চরাঞ্চলের এ গ্রামের মানুষগুলো। লালমনিরহাট জেলার বিভিন্ন চরাঞ্চল ঘুরে দেখা গেছে এ দৃশ্য।

 

সরকারিভাবে দেওয়া সোলারে চরাঞ্চলের গরিবদের অন্ধকার কেটেছে। স্বচ্ছলরা তাদের ঘরে নিজেরা কিনে লাগিয়েছে সোলার। সৌর বিদ্যুৎ এর এ আলোয় সন্ধ্যার পরে আলোকিত হয় চরাঞ্চলের গ্রাম। অনেক রাত পর্যন্ত প্রতিটি ঘরে চলে টেলিভিশন। গরমে ঘোরে ফ্যান। চার্জ হয় মোবাইল ফোন।

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা-এঁর অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ১০প্রকল্পের মধ্যে সৌর বিদ্যুৎ অন্যতম। ইতিমধ্যে লালমনিরহাট জেলার বিভিন্ন শিক্ষা, ধর্মীয় ও বিভিন্ন দাতব্য প্রতিষ্ঠানসহ চরাঞ্চলের বিভিন্ন পরিবারের মাঝে সোলার প্যানেল বিতরণ করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Design & Developed by Freelancer Zone