শিরোনাম :
সাপ্তাহিক আলোর মনি পত্রিকার অনলাইন ভার্সনে আপনাকে স্বাগতম। # সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের সঙ্গেই থাকুন। -ধন্যবাদ।
শিরোনাম :
লালমনিরহাটে বৈষম্যমূলক কোটা ব্যবস্থার সংস্কারের যৌক্তিক দাবীতে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত লালমনিরহাটে সাধারণ শিক্ষার্থীবৃন্দের বিক্ষোভ মিছিল ও অবস্থান কর্মসূচি! ভারতের সিকিম রাজ্যের প্রাক্তণ শিক্ষা মন্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার! লালমনিরহাটে ২ ছাত্রলীগের নেতার পদত্যাগ! লালমনিরহাটে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও সন্তান কমান্ডের মানববন্ধন ও স্মারক লিপি প্রদান লালমনিরহাটে পবিত্র আশুরার প্রস্তুতি চলছে লালমনিরহাটের পাটগ্রামে জমি জবর দখলের চেষ্টায় থানায় অভিযোগ! লালমনিরহাটে জেলা প্রেস ক্লাব লালমনিরহাট এর কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন অনুষ্ঠিত লালমনিরহাটে জেলা ট্রাক, ট্যাংকলড়ী ও কাভার্ড ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের সম্পাদকে বহিস্কার! লালমনিরহাটে বিএসটিআই এর মোবাইল কোর্টের অভিযানে ৩৫হাজার টাকা জরিমানা
‘অর্থনৈতিক কর্মকান্ড সচল রেখে করোনা মোকাবেলা করতেই হবে’ -পার্বত্য চট্রগ্রাম বিষয়ক সচিব

‘অর্থনৈতিক কর্মকান্ড সচল রেখে করোনা মোকাবেলা করতেই হবে’ -পার্বত্য চট্রগ্রাম বিষয়ক সচিব

লালমনিরহাট: মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখছেন সচিব মেসবাহুল ইসলাম।

আলোর মনি ডটকম ডেস্ক রিপোর্ট: ‘কোভিড-১৯ থেকে বাঁচাতে হলে মানুষকে মাস্ক পড়াতে সচেতনতা সৃষ্টি ও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে হবে। সকল পক্ষকে করোনা মোকাবেলা করতেই হবে আমাদের অর্থনৈতিক কর্মকান্ড সচল রেখে। এই করোনার কারণে বৈশ্বিক অর্থনৈতিক যখন মন্দা ভাব পরিলক্ষিত হচ্ছে। তখন কিন্তু বাংলাদেশের মানুষ করোনা জয় করেই অর্থনৈতিক কর্মকান্ড সচল রাখতে অবদান রাখছে। বিশেষ করে কৃষি ক্ষেত্রে। এজন্য আমাদের স্বাস্থ্য বিভাগ, পুলিশ বিভাগ, সিভিল প্রশাসন, ব্যবসায়ী কমিউনিটি, সেনাবাহিনী ও গণমাধ্যমসহ সকল পক্ষকে সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে।’

লালমনিরহাট: জেলা প্রশাসনের মতবিনিময়ের পর ফাইল হাতে বেড়িয়ে যাচ্ছেন মোঃ মেসবাহুল ইসলাম।

আজ বুধবার ২৬ আগস্ট দুপুরে লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসক আবু জাফরের সভাপতিত্বে প্রশাসনসহ বিভিন্ন সেক্টরের ব্যক্তিদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় পার্বত্য চট্রগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব (লালমনিরহাট জেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত) মোঃ মেসবাহুল ইসলাম প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। মতবিনিময় সভায় সরাসরি অংশ গ্রহণের পাশাপাশি অনলাইন জুমের মাধ্যমে উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও), সংবাদকর্মীসহ বিভিন্ন পক্ষের ব্যক্তিগণ আলোচনায় অংশ নেন।

 

তিনি আরও বলেন, মানুষের মৌলিক অধিকার চিকিৎসা ও খাদ্য নিশ্চিত করতে সরকার কাজ করছে। মাঠ পর্যায়ে আপনাদের সেই কাজ নিশ্চিত করতে হবে। নদী ভাঙা পরিবারকে নিরাপদ আশ্রয় দিতে খাস জমি বরাদ্দ দিতে হবে। প্রয়োজনে ঘর করে দিতে হবে। জেলা প্রশাসন এসব বিষয় নিশ্চিত করবেন। পুলিশ প্রশাসন আইন-শৃঙ্খলা বজায় রাখবেন। জনপ্রতিনিধিবৃন্দ সরকারি কার্যক্রম বাস্তবায়নে সহযোগিতা করবেন।

 

মতবিনিময় সভায় সিভিল সার্জন ডাঃ নির্মলেন্দু রায় ও পুলিশ সুপার আবিদা সুলতানা করোনা মোকাবেলায় জনসচেতনা সৃষ্টি ও মাস্ক ব্যবহারের উপর বক্তব্য রাখেন।

 

জেলা প্রশাসক আবু জাফর করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের জন্য প্রনোদনার ঋণের অর্থ ছাড় করার জন্য সচিবের হস্তক্ষেপ কামনা করে বলেন, লালমনিরহাট জেলায় ২শত ২৭জন ব্যবসায়ী এখন পর্যন্ত করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত দাবী করে সরকারি প্রনোদনা ঋণ সুবিধার জন্য আবেদন করেছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত একজন ব্যবসায়ীকেও কোনো ঋণ সুবিধা প্রদান করা সম্ভব হয়নি। জেলা বা উপজেলা পর্যায়ে ব্যাংকগুলোর শাখা ব্যবস্থাপকের মাধ্যমে প্রনোদনার ঋণ সুবিধা প্রদানের কোনো সুনির্দিষ্ট নীতিমালা এবং অনুমোদন না থাকায় তাদের পক্ষে প্রনোদনার ঋণ প্রদান করা সম্ভব নয় মর্মে আমাদেরকে জানানো হয়েছে। এই বিষয়ে ঢাকায় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে সমাধানের দাবী জানান।

 

এছাড়াও তিনি বলেন, এখন থেকে যেদিন কোনো ব্যক্তির নমুনা নেওয়া হবে সেদিন থেকে ওই ব্যক্তির হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করার উপর নজর রাখা হবে।

লালমনিরহাট: ত্রাণ বিতরণ করছেন সচিব। পাশে অন্যান্য কর্মকর্তা বৃন্দ।

এদিকে মতবিনিময় শেষে প্রধান অতিথি মোঃ মেসবাহুল ইসলাম জেলার আদিতমারী উপজেলার মহিষখোচা ইউনিয়নের বালারডাঙা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে উপস্থিত তিস্তা নদীর তীরবর্তী নদী ভাঙা ৬৭টি পরিবারের মাঝে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পাঠানো ত্রাণ সামগ্রী প্রদান করেন।

লালমনিরহাট: আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসা সেবার জন্য স্থাপিত ল্যাব দেখছেন সচিব মেসবাহুল ইসলাম।

এরপর তিনি আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিদর্শন। এ সময় জেলা প্রশাসক আবু জাফর, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) রফিকুল ইসলাম, সিভিল সার্জন ডাঃ নির্মলেন্দু রায়, গণপূর্ত অধিদপ্তর লালমনিরহাটের নির্বাহী প্রকৌশলী মনিরুজ্জামান সরকার, আদিতমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ মনসুর উদ্দিন দোলন, আদিতমারী উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা ও স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ তৌফিক আহমেদসহ চিকিৎসকরা উপস্থিত ছিলেন।

 

পরে পার্বত্য চট্রগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মেসবাহুল ইসলামের হাতে সিভিল সার্জন ডাঃ নির্মলেন্দু রায় একটি স্বারক ক্রেষ্ট, আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্মকর্তা ডাঃ তৌফিক আহমেদ জাতির পিতার অসমাপ্ত আত্মজীবনী বই ও একই হাসপাতালে কর্মরত চিকিৎসক স্নিগ্ধা দেবনাথ নিজের হাতে আঁকা একটি চিত্রকর্ম উপহার তুলে দেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Design & Developed by Freelancer Zone