শিরোনাম :
সাপ্তাহিক আলোর মনি পত্রিকার অনলাইন ভার্সনে আপনাকে স্বাগতম। # সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের সঙ্গেই থাকুন। -ধন্যবাদ।
শিরোনাম :
লালমনিরহাটে হাতী-ঘোড়া সাজিয়ে ওয়ালটনের বর্ণাঢ্য র‌্যালি লালমনিরহাটে ১৫ মিটার দৈর্ঘ্যের ৩টি গার্ডার ব্রীজ নির্মাণ শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠিত লালমনিরহাটে সর্বজনীন পেনশন মেলা ২০২৪ উদ্বোধনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত লালমনিরহাটের নিরীহ স্যানেটারী মিস্ত্রী মোঃ জিয়াউর রহমানকে মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ! অভ্যন্তরীণ বোরো ধান ও চাল সংগ্রহ ২০২৪ শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠিত গ্রামীণ অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষণ টিআর প্রকল্পের নগদ টাকা বিতরণ অনুষ্ঠিত লালমনিরহাট রেলওয়ে বিভাগে দেশের প্রথম ইঞ্জিন ও কোচ ঘুরানো টার্ন টেবিল নির্মাণ লালমনিরহাটের ঐতিহ্যবাহী সুকান দীঘিতে পদ্মফুল ফুটেছে লালমনিরহাটের ৩টি উপজেলায় স্বতন্ত্র পদপ্রার্থীদের লড়াই! লালমনিরহাটে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে পুতি রাণীর মৃত্যু
রেলপথ সংস্কার প্রকল্পে অনিয়ম অনুসন্ধানে লালমনিরহাটে দুদক!

রেলপথ সংস্কার প্রকল্পে অনিয়ম অনুসন্ধানে লালমনিরহাটে দুদক!

লালমনিরহাটে রেলপথ সংস্কার প্রকল্পের কাজের অনিয়ম অনুসন্ধানে অভিযান চালিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক।

 

বুধবার (৮ মে) দুপুরে রেলওয়ে লালমনিরহাট বিভাগীয় কার্যালয়ে দুর্নীতি দমন কমিশন কুড়িগ্রাম সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ সিরাজুল হকের নেতৃত্বে ৬সদস্যের একটি দল এ অভিযান চালায়।

 

দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক সূত্রে জানা যায়, প্রায় ৩৪কোটি ব্যয়ে কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর থেকে চিলমারী পর্যন্ত ১০.৫০কিলোমিটার রেলপথ সংস্কার প্রকল্পের কাজে অনিয়মের মাধ্যমে রেলপথ সংলগ্ন জমি থেকে মাটি কেটে রেলপথের দুই ধার সংস্কার করার অভিযোগের প্রেক্ষিতে দুদকের প্রধান কার্যালয়ের নির্দেশে অভিযানে আসে দুদকের দলটি।

 

অভিযানের সময় অভিযোগ সংশ্লিষ্ট রেলপথ মেরামত কাজের অগ্রগতি সরেজমিনে পর্যবেক্ষণ করেন। এছাড়া ঘটনাস্থলে উপস্থিত স্থানীয় লোকজনের সাথে কথা বলে রেলওয়ে কাজের বিষয়ে বক্তব্য গ্রহণ করেন। পরবর্তীতে অভিযোগ সংশ্লিষ্ট কাজের বিষয়ে যাবতীয় রেকর্ডপত্র সংগ্রহ করার উদ্দেশ্যে রেলওয়ের লালমনিরহাট বিভাগীয় প্রকৌশলীর দপ্তরে আসে এবং দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তার বিভাগীয় প্রকৌশলী আহসান হাবীবের সাথে কথা বলে অভিযোগ সংশ্লিষ্ট রেকর্ডপত্র সংগ্রহ করেন।

 

দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদকের কুড়িগ্রাম সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ সিরাজুল হক সাংবাদিকদের বলেন, আমরা সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার সাথে কথা বলেছি এবং প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সংগ্রহ করেছি। পরবর্তীতে রেকর্ডপত্র পর্যালোচনা পূর্বক কমিশন বরাবর বিস্তারিত প্রতিবেদন দাখিল করবো।

 

উক্ত অভিযানে সদস্য হিসেবে ছিলেন উক্ত কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মোঃ খালিদ মাহমুদ, উপ-সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম এবং উপ-সহকারী পরিচালক মোঃ মামুন আলী মন্ডল।

 

উল্লেখ্য যে, উক্ত কাজের অনিয়মের বিষয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে ইতোমধ্যে খবর প্রকাশিত হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Design & Developed by Freelancer Zone