শিরোনাম :
সাপ্তাহিক আলোর মনি পত্রিকার অনলাইন ভার্সনে আপনাকে স্বাগতম। # সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের সঙ্গেই থাকুন। -ধন্যবাদ।
শিরোনাম :
লালমনিরহাটে বৈষম্যমূলক কোটা ব্যবস্থার সংস্কারের যৌক্তিক দাবীতে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত লালমনিরহাটে সাধারণ শিক্ষার্থীবৃন্দের বিক্ষোভ মিছিল ও অবস্থান কর্মসূচি! ভারতের সিকিম রাজ্যের প্রাক্তণ শিক্ষা মন্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার! লালমনিরহাটে ২ ছাত্রলীগের নেতার পদত্যাগ! লালমনিরহাটে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও সন্তান কমান্ডের মানববন্ধন ও স্মারক লিপি প্রদান লালমনিরহাটে পবিত্র আশুরার প্রস্তুতি চলছে লালমনিরহাটের পাটগ্রামে জমি জবর দখলের চেষ্টায় থানায় অভিযোগ! লালমনিরহাটে জেলা প্রেস ক্লাব লালমনিরহাট এর কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন অনুষ্ঠিত লালমনিরহাটে জেলা ট্রাক, ট্যাংকলড়ী ও কাভার্ড ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের সম্পাদকে বহিস্কার! লালমনিরহাটে বিএসটিআই এর মোবাইল কোর্টের অভিযানে ৩৫হাজার টাকা জরিমানা
জমে উঠেছে পবিত্র ঈদ উল আযহার বাজার

জমে উঠেছে পবিত্র ঈদ উল আযহার বাজার

পবিত্র ঈদ-উল-আযহার আরও কয়েক দিন বাকি আছে। এরই মধ্যে জমে উঠেছে লালমনিরহাট জেলার ৫টি (লালমনিরহাট সদর, আদিতমারী, কালীগঞ্জ, হাতীবান্ধা, পাটগ্রাম) উপজেলার ৪৫টি ইউনিয়ন, ২টি (লালমনিরহাট, পাটগ্রাম) পৌরসভার বাজার। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত মার্কেটের সবগুলো ক্রেতায় পরিপূর্ণ হয়ে আছে। বিক্রেতাদের যেনো দম ফেলানোর ফুসরত নেই। এবার ব্যবসা ভালো হবে বলে মনে করেন ব্যবসায়ীরা।

 

লালমনিরহাট বাজার ঘুরে দেখা গেছে, এবারের ঈদ বাজার ইতোমধ্যে পুরোপুরি জমে উঠেছে। চলতি মাসের দ্বিতীয় দিন থেকে মার্কেটগুলোতে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড় শুরু হয়েছে। এখন সকাল ১০টা থেকেই বিক্রিতে ধুম লেগে যায় বাজারের ছোট বড় সকল দোকানে।

 

ব্যবসায়ীদের সূত্রে জানা যায়, গার্মেন্ট আইটেম, কাটা কাপড়ের দোকান আর কাপড়ের দোকানগুলোতে পুরোপুরি ভিড় লক্ষ্য করা যাচ্ছে। আবার জুতোর দোকানগুলোতে ঈদের ক্রেতায় পরিপূর্ণ হয়ে আছে।

 

সরেজমিনে দেখা যায়, গত এক বছরের মধ্যে লালমনিরহাট বাজারে নতুন করে বেশ কয়েকটি মার্কেট চালু হয়েছে। এসব মার্কেটের অধিকাংশ দোকান গার্মেন্ট আইটেম সম্বলিত ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান নিয়ে চালু হয়েছে।

 

এদিকে বাজারের ক্রেতা-বিক্রেতাদের কথা মাথায় রেখে লালমনিরহাট জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে মোবাইল কোর্টে বেশকটি টিম পুরো বাজারে দিনরাত দায়িত্ব পালন করছে বলে জানা যায়।

 

ক্রেতা হাসান আলী, রশিদুল ইসলাম রিপন ও নায়েব আলী বলেন, সাধ্য মতো নিজের ও পরিবারের সদস্যদের কেনাকাটা করা চেষ্টা করছি। এতে সবার মনে যেন ঈদ আনন্দ পৌচ্ছে যায়।

 

বিক্রেতা ফারুক আহমেদ সূর্য বলেন, ক্রেতারা তাদের নিজ নিজ পছন্দ করে, তার পর দাম দরে বনলে তারা ক্রয় করেন, তখন আমরা বিক্রয় করি। এতে ক্রেতা-বিক্রেতাদের মধ্যে সম্পর্ক ভালো থাকে। ঈদ আনন্দ ভাগাভাগি হয়।

 

লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক মোঃ আবু জাফর বলেন, পবিত্র ঈদ উল আযহা জন্য সার্বিক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। সেই সাথে জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে মোবাইল কোর্টে বেশকটি টিম পুরো বাজারে দিনরাত দায়িত্ব পালন করছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Design & Developed by Freelancer Zone