শিরোনাম :
সাপ্তাহিক আলোর মনি পত্রিকার অনলাইন ভার্সনে আপনাকে স্বাগতম। # সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের সঙ্গেই থাকুন। -ধন্যবাদ।
শিরোনাম :
লালমনিরহাটে কয়েকদিনের বৃষ্টিপাতে কপাল পুড়ছে মরিচ চাষির! খবর প্রকাশের পর জনস্বার্থে কেটে ফেলা হলো লালমনিরহাটের সেই প্রাচীন বটগাছটির ঝুঁকিপূর্ণ ডাল! লালমনিরহাটের তিস্তা নদীর পানি বিপদসীমার ২৫সেন্টিমিটার উপরে! লালমনিরহাটের তিস্তা নদীর পানি বিপদসীমার ১৩সেন্টিমিটার উপরে! লালমনিরহাটে বিদ্যুতের সঙ্গে বন্ধ হয় মোবাইল নেটওয়ার্কও; হতাশায় এলাকাবাসী! লালমনিরহাটে খেলাধুলার মাঠে মাটির স্তূপ! লালমনিরহাটে পবিত্র ঈদ-উল-আযহা উদযাপিত দেশবাসীকে সাপ্তাহিক আলোর মনি’র ঈদ-উল-আযহার শুভেচ্ছা লালমনিরহাটে কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা-২০২৪ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত লালমনিরহাটে জাতীয় মহাসড়কের ডিভাইডারে ঝুঁকিপূর্ণ বিলবোর্ড স্থাপন!

ধন্যবাদ

আনিসুল হক:

ধন্যবাদ, বন্ধুরা। ধন্যবাদ, খোদাতালা। ধন্যবাদ, সবাইকে। ধন্যবাদ, আব্বা-আম্মাকে। ধন্যবাদ স্ত্রী-কন্যাকে। ধন্যবাদ, ভাইবোন, ভাইবেরাদারদের। ধন্যবাদ, যারা যারা আমাকে ভালোবাসা, আশ্রয়প্রশ্রয় দিয়ে যাচ্ছেন। জানি না, কতদিন বাঁচব। শুধু করোনা বা কোভিডের কারণে না। যে কোনো সময়ই তো যে কেউ মারা যেতে পারে। রোজ তো কুড়ি জন এদেশে মারা যায় সড়ক দুর্ঘটনায়। বছরে প্রায় পাঁচ-সাত হাজার। এতদিন যে বেঁচে ছিলাম, এ জন্যই তো কৃতজ্ঞতা জানানো উচিত ভাগ্যের প্রতি, ভাগ্যবিধাতার প্রতি। এবং খুব সুন্দর জীবন পেয়েছি। খুব সুন্দর দেশে জন্মেছি, খুব সুন্দর সুন্দর মানুষের সঙ্গে জীবন কাটিয়েছি, চেনা-অচেনা বহু মানুষের ভালোবাসা পেয়েছি, অশোধ্য ঋণের বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছি। এই আকাশ সুন্দর, এই বাতাস সুন্দর। এই ফুল সুন্দর, এই ফল সুন্দর। অনেক তোমার খেয়েছি গাে অনেক নিয়েছি মা। তবু জানি নে তো কীবা তোমায় দিয়েছি মা। দোয়া করেন যেন আরো অনেকদিন সুস্থ্য দেহে সুস্থ্য মন নিয়ে মান সম্মানের সঙ্গে বাঁচতে পারি। কিন্তু এখনই যদি যেতে হয়, মনে রাখবেন, কোনো খেদ নেই। আমি কৃতজ্ঞ। খুব সুন্দর একটা জীবন, খুব আনন্দের একটা জীবনই যাপন করে গেলাম। একটা জীবন পেয়েছিলাম, মানুষের জীবন, এর চেয়ে সৌভাগ্যের আর কীই বা হতে পারত। থ্যাংক, গড। অ‌্যান্ড আই থ্যাংক ইউ অল। এটা কোনো বিদায়ী সম্ভাষণ না। আমি আপনাদের দোয়ায় ভালো আছি। আপনারাও সবাই ভালো থাকুন। সুস্থ্য থাকুন। সুখে থাকুন। নিরাপদ থাকুন। আনন্দে থাকুন। দীর্ঘ সুন্দর জীবনের অধিকারী হোন। এই দোয়া করি।

লেখক : সাহিত্যিক, সাংবাদিক ও সম্পাদক, কিআ।

 

★Anisul Hoque-ফেসবুক থেকে।

সংবাদটি শেয়ার করুন




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Design & Developed by Freelancer Zone