শিরোনাম :
সাপ্তাহিক আলোর মনি পত্রিকার অনলাইন ভার্সনে আপনাকে স্বাগতম। # সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের সঙ্গেই থাকুন। -ধন্যবাদ।
শিরোনাম :
লালমনিরহাটে কয়েকদিনের বৃষ্টিপাতে কপাল পুড়ছে মরিচ চাষির! খবর প্রকাশের পর জনস্বার্থে কেটে ফেলা হলো লালমনিরহাটের সেই প্রাচীন বটগাছটির ঝুঁকিপূর্ণ ডাল! লালমনিরহাটের তিস্তা নদীর পানি বিপদসীমার ২৫সেন্টিমিটার উপরে! লালমনিরহাটের তিস্তা নদীর পানি বিপদসীমার ১৩সেন্টিমিটার উপরে! লালমনিরহাটে বিদ্যুতের সঙ্গে বন্ধ হয় মোবাইল নেটওয়ার্কও; হতাশায় এলাকাবাসী! লালমনিরহাটে খেলাধুলার মাঠে মাটির স্তূপ! লালমনিরহাটে পবিত্র ঈদ-উল-আযহা উদযাপিত দেশবাসীকে সাপ্তাহিক আলোর মনি’র ঈদ-উল-আযহার শুভেচ্ছা লালমনিরহাটে কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা-২০২৪ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত লালমনিরহাটে জাতীয় মহাসড়কের ডিভাইডারে ঝুঁকিপূর্ণ বিলবোর্ড স্থাপন!
রেলওয়ে কর্মচারীরাই চুরি করল রেলের মবিল ও ডিজেল

রেলওয়ে কর্মচারীরাই চুরি করল রেলের মবিল ও ডিজেল

আলোর মনি ডটকম ডেস্ক রিপোর্ট: লালমনিরহাট রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা তেল চুরি প্রতিরোধ অভিযান চালিয়ে বিপুল (রেল ইঞ্জিনে ব্যবহারের জ্বালানী) পরিমাণ মবিল ও ডিজেল উদ্ধার করেছে।

 

এ সময় ২জনকে আটক করলেও রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের ওপর হামলা চালিয়ে আটককৃত ওই দুই তেল চোরকে ছিনিয়ে নেয় চোর সিন্ডিকেটের সংঘবদ্ধ সদস্যরা।

 

রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী সূত্র জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তেল চুরি প্রতিরোধ অভিযান পরিচালনাকালে গতকাল শনিবার ২৯ আগস্ট সকালে লালমনিরহাট রেলওয়ে ডিভিশনের মহেন্দ্রনগর রেলওয়ে স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় রেলওয়ের ৩কর্মচারী ও চোর চক্রের ১জনের যোগসাজসে চলন্ত ট্রেন ২০ডাউন এর সংযুক্ত বগি স্টোরভ্যান থেকে মবিল ভর্তি ৩টি ড্রাম ও ডিজেল ভর্তি ২টি জ্যারিকেন নিচে ফেলে দিয়ে চলে যায়।

 

পরে বাংলাদেশ রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী লালমনিরহাট এর ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গোলাম রাসুল সরকারের নেতৃত্বে একটি দল মহেন্দ্রনগর এলাকায় অভিযান চালিয়ে ওই ট্রেন থেকে ফেলে দেয়া ৩টি ড্রাম ভর্তি ৬শত ২৪লিটার মবিল ও ২টি জ্যারিকেন ভর্তি ৩০লিটার ডিজেল উদ্ধার করে।  যার আনুমানিক মুল্য- ১লাখ ৮০হাজার টাকা। এ সময় মবিল চোর সিন্ডিকেটের ২সদ্যসকে আটক করে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা। আটকের কিছুক্ষণের মধ্যে ওই সিন্ডিকেটের সক্রিয় সদস্যরা সংঘবদ্ধ হয়ে রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর ৪সদস্যের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে আটক ২চোরকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

 

এ ব্যাপারে লালমনিরহাট রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী ৪জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেছে। অভিযুক্ত ৪জনের মধ্যে ৩জনই রেলওয়ের কর্মচারী। এরা হলেন স্টোর ক্লার্ক আঃ রাকিব, স্টোর খালাসী সাইদুল ইসলাম স্বপন, স্টোর খালাসী বকুল শেখ, অপরজন রাসুল শেখ চোর চক্রের সদস্য।

 

এছাড়াও সরকারি কাজে বাধা ও আসামী ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনায় রেলওয়ে জিআরপি থানা পুলিশ অজ্ঞাতনামা ৪০জনকে আসামী করে পৃথক আরও একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

 

লালমনিরহাট নিরাপত্তা বাহিনীর ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গোলাম রাসুল সরকার জানান, অভিযুক্তদের গ্রেফতার ও রেলওয়ের প্রচলিত বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়ার জোর তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Design & Developed by Freelancer Zone