শিরোনাম :
সাপ্তাহিক আলোর মনি পত্রিকার অনলাইন ভার্সনে আপনাকে স্বাগতম। # সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের সঙ্গেই থাকুন। -ধন্যবাদ।
শিরোনাম :
লালমনিরহাটে বৈষম্যমূলক কোটা ব্যবস্থার সংস্কারের যৌক্তিক দাবীতে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত লালমনিরহাটে সাধারণ শিক্ষার্থীবৃন্দের বিক্ষোভ মিছিল ও অবস্থান কর্মসূচি! ভারতের সিকিম রাজ্যের প্রাক্তণ শিক্ষা মন্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার! লালমনিরহাটে ২ ছাত্রলীগের নেতার পদত্যাগ! লালমনিরহাটে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও সন্তান কমান্ডের মানববন্ধন ও স্মারক লিপি প্রদান লালমনিরহাটে পবিত্র আশুরার প্রস্তুতি চলছে লালমনিরহাটের পাটগ্রামে জমি জবর দখলের চেষ্টায় থানায় অভিযোগ! লালমনিরহাটে জেলা প্রেস ক্লাব লালমনিরহাট এর কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন অনুষ্ঠিত লালমনিরহাটে জেলা ট্রাক, ট্যাংকলড়ী ও কাভার্ড ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের সম্পাদকে বহিস্কার! লালমনিরহাটে বিএসটিআই এর মোবাইল কোর্টের অভিযানে ৩৫হাজার টাকা জরিমানা
কোরবানির পশুরহাটে বালাই নেই স্বাস্থ্যবিধির

কোরবানির পশুরহাটে বালাই নেই স্বাস্থ্যবিধির

আলোর মনি ডটকম ডেস্ক রিপোর্ট: পবিত্র ঈদ উল আজহাকে সামনে রেখে শনিবার থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে কোরবানির পশুরহাট বসেছে লালমনিরহাটে। মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে এবার লালমনিরহাটের বিভিন্ন হাটে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন (৩ফুট) স্বাস্থ্যবিধি মেনে কোরবানির পশুরহাট বসার কথা ছিল। কিন্তু এসব হাটে স্বাস্থ্যবিধি মানার খুব একটা বালাই নেই। হাটের সংখ্যা কমানো এবং অনলাইনে পশু কেনার ব্যাপারে উৎসাহিত করা হলেও তাতে খুব একটা পাত্তা দিচ্ছে না ক্রেতা-বিক্রেতা সাধারণ। অন্যান্য বছরের মতোই তারা দল বেঁধে হাটে যাচ্ছে পশু দেখতে ও ক্রয়-বিক্রয় করতে।

শনিবার লালমনিরহাটের দুরাকুটি হাটে দেখা যায়, দর্শনার্থীদের আনাগোনা প্রচুর। তবে বেচা-কেনা হচ্ছে কম।

বিক্রেতারা জানান, ঈদের ৩দিন আগে থেকে জমে উঠবে বেচাকেনা।

দেখা যায়, হাটে আসা দর্শনার্থীদের মধ্যে অনেকে সপরিবারে এসেছেন কোরবানির পশু পছন্দ করতে। কেউ কেউ শিশুদেরও নিয়ে এসেছেন হাটে। অথচ এটা স্বাস্থ্যবিধির লঙ্ঘন বলে স্পষ্ট উল্লেখ আছে।

হাটে আসা কয়েকজনের সঙ্গে কথা বললে তারা জানান, প্রতি বছর কোরবানি ঈদে তারা হাটে এসে দেখে-শুনে-বুঝে পশু কিনেন। এবারও সেটাই করছেন। করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবকে তারা খুব একটা গুরুত্ব দিচ্ছেন বলে মনে হলো না।

এছাড়াও হাটে আসা ক্রেতা-বিক্রেতার অনেকের মুখে নেই মাস্ক। মানছেন না সামাজিক দূরত্বও। অনেকে গাদাগাদি করে গরুর পাশে ভিড় করছেন। যারা গরু নিয়ে এসেছেন তাদেরও অনেকের মুখে নেই মাস্ক। অথচ সবার জন্য মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করেছে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার।

জানা গেছে, সেখানেও ক্রেতা-বিক্রেতা সাধারণের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার বালাই কম। তবে প্রশাসনের পক্ষ থেকে চেষ্টা করা হচ্ছে জনসাধারণকে সচেতন করতে।

সংবাদটি শেয়ার করুন




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Design & Developed by Freelancer Zone