শিরোনাম :
সাপ্তাহিক আলোর মনি পত্রিকার অনলাইন ভার্সনে আপনাকে স্বাগতম। # সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের সঙ্গেই থাকুন। -ধন্যবাদ।
বড়বাড়ীর আমতলা এলাকায় এক বাড়িতে দূর্ধর্ষ চুরি

বড়বাড়ীর আমতলা এলাকায় এক বাড়িতে দূর্ধর্ষ চুরি

লালমনিরহাটের বড়বাড়ীতে এক বাড়িতে দূর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটছে। সেখানে চোরের দল ঘরের দরজা ভেঙ্গে এলাকায় চুরি পাঁচ লাখ টাকা চুরির অভিযোগ উঠেছে।

 

লালমনিরহাট জেলা সদরের বড়বাড়ী ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের আমতলা বাজারে পূর্ব পাশে মৃত্যু বিজয় কৃষ্ণ রায়ের ছেলে বিধান চন্দ্র রায় (৪২) এর বাড়িতে চোরের দল সোমবার (২৮ আগস্ট) সন্ধ্যা অনুমান ৭ঘটিকায় ঘরের দরজা ভেঙ্গে প্রায় পাঁচ লাখ টাকা চুরি করে নিয়ে যায়।

 

এ বিষয়ে রাতে লালমনিরহাট সদর থানায় একটি অভিযোগ দিয়েছেন বিধান চন্দ্র রায়।

 

অভিযোগ সূত্রে ও এলাকাবাসির কাছ থেকে জানা যায়, সন্ধ্যায় বাড়ির মহিলারা সবাই গরু ছাগল গোয়াল ঘরে ঢুকিয়ে রান্না ঘরে কাজে ব্যস্ত। আর পুরুষরা আমতলা বাজারে মুদির দোকানে ব্যস্ত এমন সময় রাত অনুমান ৮ঘটিকার সময় বাড়ির লোকজন টেন পায় তাদের পূর্ব দোয়ারি ঘরের দরজার তালা ভেঙ্গে পড়ে আছে। ঘরের ভিতর প্রবেশ করে পায় ড্রেসিন টেবিলের ড্রয়ার ভাঙ্গা ও পুরো ঘর এলোমেলো অবস্থায় পরে আছে। তারপর দেখেন ড্রেসিন টেবিলের ড্রয়ার ভাঙ্গিয়া ভিতরে থাকা জমি বিক্রয়ের তিন লক্ষ টাকা ও সুপারী ব্যবসার এক লক্ষ আশি হাজার মোট চার লক্ষ আশি হাজার টাকা নেই। সন্ধ্যায় কে বা কারা কৌশলে ঘরের দরজা ভেঙ্গে চুরি করিয়া নিয়া যায়। এই দৃশ্য দেখে পরিবারে সদস্য মাইকেল চন্দ্র রায় অজ্ঞান হয়ে যায়।

 

বাড়িতে চুরি হওয়ার বিষয়ে বিধান চন্দ্র রায় বলেন, আমতলা বাজারে আমাদের মুদির দোকান আছে বিকাল ৫ঘটিকায় সময় আমি দোকানে যাই, রাতে বাড়িতে এসে দেখি বাড়ি চুরি হয়েছে, আমার ধারনা অজ্ঞাতনামা চোর বা চোরেরা সংগোপনে সন্ধ্যা অনুমান ৭ থেকে ৮ঘটিকার মধ্যে যেকোন সময় পূর্ব পরিকল্পিতভাবে আমার বসত বাড়ীতে প্রবেশ করিয়া জমি ও ব্যবসার চার লক্ষ আশি হাজার টাকা চুরি করিয়া নিয়া গিয়াছে। পুলিশের যেন দ্রুত আমাদের চুরি হওয়া টাকা উদ্ধার করে দেয় এবং চোরদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করে।

 

লালমনিরহাট সদর থানার অফিসার ইনচার্জ ওমর ফারুক বলেন, রাতে একটি অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Design & Developed by Freelancer Zone