শিরোনাম :
সাপ্তাহিক আলোর মনি পত্রিকার অনলাইন ভার্সনে আপনাকে স্বাগতম। # সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের সঙ্গেই থাকুন। -ধন্যবাদ।

বিএনপি-আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মাঝে সংঘর্ষ!

কেন্দ্রীয় ঘোষিত আওয়ামী লীগের শান্তি সমাবেশ ও বিএনপির পদযাত্রা কর্মসূচি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে শনিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) লালমনিরহাট সদর উপজেলার মহেন্দ্রনগর ইউনিয়নের বুড়ির বাজারে পাশাপাশি সেই সমাবেশে নিজ নিজ দলের নেতাকর্মীরা পালন করতে থাকে। সমাবেশ-পদযাত্রা অনুষ্ঠান একই সময় হওয়ার কারণে দলীয় নেতাকর্মীদের উস্কানীমূলক শ্লোগানের কারণে হামলা চলতে থাকে।

 

জানা যায়, রাজনীতির মাঠ দখল নিতে বিকাল অনুমান ৩ঘটিকার দিকে বুড়ির বাজারে এক অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি হয়।

 

এ সময় জেলা পরিষদের সদস্য ও মহেন্দ্রনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ তাহমিদুল ইসলাম বিপ্লবের মাথা ফেটে যায়।

 

অপরদিকে মহেন্দ্রনগর বিএনপি অফিসে ভাংচুর করার পরে ইউনিয়ন বিএনপি সভাপতি ও মহেন্দ্রনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ আব্দুল মজিদ মন্ডল-এর বাড়ির সামনে কয়েকটি মোটর সাইকেল ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে।

 

এ ঘটনায় উভয় রাজনৈতিক দল দাবি করে বলে তাদের রাজনৈতিক কর্মসূচি বানচালের জন্য এই হামলা হয়েছে।

 

জানা গেছে, সারা দেশে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ শান্তি সমাবেশ পালনের পূর্ব ঘোষণা ছিল শনিবার (১১ ফেব্রুয়ারি)। একই দিন বিএনপির সারা দেশে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে পদযাত্রা কর্মসূচি ছিল। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষে শান্তি সমাবেশ করতে মহেন্দ্রনগর ইউনিয়নের মহেন্দ্রনগরে শান্তি সমাবেশ বিকালে অনুষ্ঠিত হয়। এই শান্তি সমাবেশ বানচাল করতে মহেন্দ্রনগর বাজারের অনতিদূরে বুড়ির বাজারে দূর্বৃত্তরা বিএনপির অফিস ভাংচুর করে। একই সময় বিএনপির ইউনিয়ন সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ আব্দুল মজিদ মন্ডলের বাড়ির সামনে কয়েকটি মোটর সাইকেল ভাংচুর ও জ্বালিয়ে দেয়ার ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর পরেই অত্র এলাকায় পুলিশ মোতায়েন হতে থাকে।

 

এদিকে বুড়ির বাজার ব্যবসায়ীরা বাজারে তাদের দোকানে দূর্বৃত্তদের হামলার ঘটনায় সড়ক অবরোধ করেছে। যার কারণে রাতে ঢাকাগামী নাইট কোচগুলো অন্য রাস্তা দিয়ে ঘুরে যায়।

 

লালমনিরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মোঃ মতিয়ার রহমান জানান, আওয়ামী লীগের শান্তি সমাবেশ বানচাল করতে বিএনপির দূর্বৃত্তরা ষড়যন্ত্রমূলক ভাবে আমাদের নেতাকর্মীদের মোটর সাইকেল ও নেতাকর্মীদের ওপর হামলা করেছে। আওয়ামী লীগের কোন রাজনৈতিক কর্মসূচি বুড়ির বাজারে ছিলোনা। বিএনপির দূর্বৃত্তরা নিজের অফিস নিজেরা ভেঙ্গে দায় চাপাতে চায় সরকারী দলের উপর।

 

এদিকে লালমনিরহাট জেলা বিএনপির সভাপতি অধ্যক্ষ (অবঃ) আসাদুল হাবিব দুলু জানান, সারাদেশে বিএনপির পদযাত্রা পূর্ব ঘোষিত রাজনৈতিক কর্মসূচি ছিলো। এই শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি বানচাল করতে বুড়ির বাজারে আওয়ামী লীগের দূর্বৃত্তরা বিএনপি অফিস ও বিএনপির সভাপতির বাড়িতে সামনের রাস্তায় বেশ কয়েকটি মোটর সাইকেল ভাংচুর করেছে। তারা পদযাত্রা বানচাল করতে এটা করেছে।

 

এ বিষয়ে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বলেন, কেন্দ্রীয় ঘোষিত উভয় দলের প্রোগ্রাম ছিলো। উভয় দলের রাজনৈতিক কোন্দলের কারণে এ ঘটনা ঘটতে পারে। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Design & Developed by Freelancer Zone