শিরোনাম :
সাপ্তাহিক আলোর মনি পত্রিকার অনলাইন ভার্সনে আপনাকে স্বাগতম। # সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের সঙ্গেই থাকুন। -ধন্যবাদ।
লালমনিরহাটের কৃষকরা মাল্টা চাষে সফলতা পাচ্ছেন

লালমনিরহাটের কৃষকরা মাল্টা চাষে সফলতা পাচ্ছেন

আলোর মনি ডটকম ডেস্ক রিপোর্ট: লালমনিরহাট জেলায় ব্যাপক হারে মাল্টার বাণিজ্যিক চাষ দিন পর দিন বাড়ছে। মাল্টা চাষে উৎপাদন খরচ কম ও সেই সঙ্গে রোগবালাই কম হওয়ায় আর্থিকভাবে লাভবান হচ্ছেন চাষীরা।

 

এদিকে মাল্টার আবাদ বাড়াতে সবধরণের সহযোগিতা করা হচ্ছে বলেও জানিয়েছে লালমনিরহাট জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর।

 

লালমনিরহাট জেলার মাটি ও আবহাওয়া মাল্টা চাষের উপযোগী হওয়ায় এখানে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে এর আবাদ।

 

লালমনিরহাট জেলার লালমনিরহাট সদর, আদিতমারী ও পাটগ্রাম উপজেলাতেই ছোট-বড় প্রায় অর্ধশতাধিক মাল্টা বাগান গড়ে ওঠেছে।

 

এখানকার মাল্টা খেতে সুস্বাদু হওয়ায় এর চাহিদাও বেশ। সরাসরি বাগান থেকেই কিনে নিয়ে যান ব্যবসায়ীরা। স্থানীয় বাজারের চাহিদা মিটিয়ে সরবরাহ করা হচ্ছে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে। আর্থিকভাবে লাভবান  হচ্ছেন কৃষকেরা।

 

অপরদিকে মাল্টা বাগানে নতুন করে কর্মসংস্থানের সুযোগ হয়েছে অনেকের।

 

মাল্টার আবাদ আরও বাড়াতে চাষীদের সব রকমের পরামর্শ ও সহযোগিতা দেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর। স্থানীয় অর্থনীতিকে সমৃদ্ধ করার পাশাপাশি মানুষের পুষ্টি চাহিদা পূরণেও মাল্টার চাষ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে বলেও মনে করছে তারা।

 

উল্লেখ্য যে, লালমনিরহাট জেলা মহেন্দ্রনগর ইউনিয়নের হাঁড়িভাঙ্গায় ৬একর জমি লিজ নিয়ে বিশাল আকারের মাল্টা চাষ করছেন একরামুল।

 

আদিতমারী উপজেলার সারপুকুর ইউনিয়নের টিপারবাজারের আবু তাহের ৭বিঘা জমিতে বিশাল মাল্টা বাগান করেছেন।

 

পাটগ্রাম উপজেলার ধবলসুতি আহসানুল হক বিপুলের ব্যক্তিগত উদ্যোগে প্রায় ৮একর জমিতে লাগানো ১৩শত মাল্টা গাছের বাগান। এটি লালমনিরহাট জেলার সর্ববৃহৎ একটি মাল্টা বাগান।

সংবাদটি শেয়ার করুন




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Design & Developed by Freelancer Zone