শিরোনাম :
সাপ্তাহিক আলোর মনি পত্রিকার অনলাইন ভার্সনে আপনাকে স্বাগতম। # সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের সঙ্গেই থাকুন। -ধন্যবাদ।
শিরোনাম :
শব্দহীন কবিতার অবয়ব ভাটিবাড়ী লোকনাট্য দলের আহবায়ক কমিটি গঠন অনুষ্ঠিত মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত পাটগ্রাম তাহেরা বিদ্যাপীঠে বার্ষিক ক্রীড়া, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত লালমনিরহাট কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার মাতৃভাষা দিবসের শ্রদ্ধা জানাতে প্রস্তুত সুলতানুল আউলিয়া, ইনসানে অলীয়ে কামেল হযরত শাহ্ নওগজি (রহঃ) এর বাৎসরিক মহা পবিত্র ওরছ মোবারক লালমনিরহাটে নবনির্বাচিত জাতীয় সংসদ সদস্য অ্যাড. মোঃ মতিয়ার রহমান এর সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত লালমনিরহাট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির পরিচালক পদের ২১টি মনোনয়নপত্র জমা ভাটিবাড়ী আদর্শ ইজিবাইক মালিক কল্যাণ সমিতির নব নির্বাচিত সভাপতি/ সম্পাদকসহ কার্যকরী পরিষদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত লালমনিরহাট জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদের উপনির্বাচন এর স্থগিতের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ

জমে উঠেছে শীতবস্ত্রের দোকান

হিমালয়ের পাদদেশে অবস্থান করায় শীত ও কুয়াশায় ঢাকা পড়েছে লালমনিরহাট। কুয়াশায় ও কনকনে ঠান্ডায় জেলায় গত কদিন ধরে শীত পড়তে শুরু করায় জমে উঠেছে ফুটপাতে ভ্রাম্যমাণ শীত পোশাক ব্যবসা। প্রতিদিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত এসব স্থানে বিভিন্ন মানুষের ভিড় লক্ষ্য করা যায়।

 

সরেজমিনে দেখা যায়, জেলা শহরের গোশালা বাজার মার্কেট, পৌর নিউ মার্কেট, উত্তরণ সুপার মার্কেট, পাটোয়ারী মার্কেট, কালীবাড়ী (পুরান বাজার) মার্কেট, শাহান শপিং কমপ্লেক্স, বিডিআর রোড মার্কেট, বড় মসজিদ মার্কেট, রেলওয়ে স্টেশন রোড মার্কেট, মিশন মোড় সেনা মৈত্রী মার্কেট ও গ্রামের বিভিন্ন হাট-বাজারে বিভিন্ন এলাকায় ফুটপাতের ওপর ও ভ্যান গাড়িতে করে বাহারি রঙের এসব শীতবস্ত্র বিক্রি করতে। এখানে গরিবদের পাশাপাশি অনেক উচ্চবিত্তকে পোশাক কিনতে আসে এসব দোকানে।

 

ভ্রাম্যমাণ ব্যবসায়ী জানায়, প্রতি বছরই নতুন নতুন সাজে পোশাকের ওপর পোশাক সাজিয়ে এভাবে তারা শীতের পোশাক বিক্রি করে আসছে। বিকেল হলেই এসব অস্থায়ী দোকানে ক্রেতাদের ভিড় বাড়তে থাকে। গভীর রাত পর্যন্ত তাদের বেচাকেনা চলে। আর এসব পোশাক কিনতে নিম্ন আয়ের লোকজনই বেশি আসেন বলে ব্যবসায়ীরা জানায়।

 

ব্যবসায়ীরা আরও জানায়, সাধারণত বিভিন্ন গার্মেন্টসের এক্সপোর্টের পুরনো ও পরিত্যক্ত এসব পোশাক তারা ঢাকা থেকে গাইড হিসেবে কিনে আনেন। তবে এসব পোশাকের মধ্যে অনেক সময় খুবই ভালোমানের পোশাক পাওয়া যায়। তাই অনেক উচ্চবিত্তও এখান থেকে পোশাক কিনতে আসেন বলে জানায় তারা।

 

ভ্রাম্যমাণ ব্যবসায়ী জানান, এ বছর প্রথম থেকেই শীত শুরু হওয়ায় বেচা-বিক্রি অনেক ভালো। তার এখানে ১শত টাকা থেকে ৫শ টাকার মধ্যে শীতবস্ত্র পাওয়া যায়।

 

শীতের পোশাক কিনতে আসা এক ক্রেতা বলেন, অল্প দামে হামরা প্রতি বছর এটে থেকে শীতের পোশাক কিনি। শুধু নিজের জন্য নয়, দরিদ্র এসব মানুষ পরিবার ও পরিজনদের জন্যও এখানে থেকে শীতের পোশাক কিনতে দেখা যায়।

সংবাদটি শেয়ার করুন




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Design & Developed by Freelancer Zone