শিরোনাম :
সাপ্তাহিক আলোর মনি পত্রিকার অনলাইন ভার্সনে আপনাকে স্বাগতম। # সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের সঙ্গেই থাকুন। -ধন্যবাদ।
শিরোনাম :
কৃষক লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত লালমনিরহাটে উপজেলা চেয়ারম্যান ৭, ভাইস চেয়ারম্যান ১০, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ৬জন বৈধভাবে মনোনীত প্রার্থী; ১জন চেয়ারম্যানের মনোনয়নপত্র বাতিল! প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনী ২০২৪ শুভ উদ্বোধন এবং আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত মানবিক সহায়তা (ঢেউটিন ও টাকা) বিতরণ অনুষ্ঠিত এমদাদুল সিন্ডিকেটের এক সদস্য গ্রেফতার! সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে সাবেক ইউপি সদস্য গুলিবিদ্ধ লালমনিরহাটের ২টি উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৮জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১০জন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৬জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল দুর্গন্ধে অতিষ্ঠ লালমনিরহাটের শখের বাজার সড়কের পথচারীরা, কর্তৃপক্ষ নির্বিকার লালমনিরহাটে বিলুপ্তির পথে ঘুঘু পাখি! একুশ বছর
নারী ও মেয়ে শিশুদের মৃত্যুদেহের পোস্টমর্টেম করে যাচ্ছেন পুরুষ ডাক্তার ও পুরুষ মর্গ সহকারীরাই

নারী ও মেয়ে শিশুদের মৃত্যুদেহের পোস্টমর্টেম করে যাচ্ছেন পুরুষ ডাক্তার ও পুরুষ মর্গ সহকারীরাই

লালমনিরহাট জেলার ৫টি (লালমনিরহাট সদর, আদিতমারী, কালীগঞ্জ, হাতীবান্ধা, পাটগ্রাম) উপজেলার ৪৫টি ইউনিয়ন, ২টি (লালমনিরহাট, পাটগ্রাম) পৌরসভার বিভিন্ন পাড়া/মহল্লা, গ্রাম অঞ্চলে খুন, আত্মহত্যাসহ নানাভাবে প্রতিনিয়তই অপমৃত্যু ঘটছে বহু নারী ও মেয়ে শিশুর। নিয়ম অনুযায়ী তাদের মরদেহ পোস্টমর্টেমও করা হচ্ছে কিন্তু লাশ কাটা ঘরে নারীদেহ কাটা-ছেঁড়ার স্পর্শকাতর এই কাজটা করে যাচ্ছেন পুরুষ ডাক্তার ও পুরুষ মর্গের সহকারীরা। ডাক্তার বা মর্গ সহকারী হিসেবে মহিলাদের এ দায়িত্বে আসতে দেখা যাচ্ছে না। লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে শুধু পুরুষ ডাক্তার ও পুরুষ মর্গ সহকারীরাই দিনের পর দিন নারী ও মেয়ে শিশুদের মৃতদেহের পোস্টমর্টেম করে যাচ্ছেন।

 

ভুক্তভোগী অনেক পরিবারেরই আক্ষেপ, পারিবারিক সহিংসতা বা দুর্ঘটনার মৃত্যু দাড়াও নানা অনৈতিক কর্মকাণ্ডে শিকার হয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয় অনেক নারী ও মেয়ে শিশু। মৃত্যুর পর তাদের নিয়ে যাওয়া হয় ময়নাতদন্তের টেবিলে। যেখানে পরীক্ষা-নিরীক্ষারর সবটুকুই সম্পন্ন করেন পুরুষ ডাক্তার ও পুরুষ মর্গ সহকারীরা। সব ধর্মের মানুষের ক্ষেত্রেই এটি অনৈতিক ও সম্মানহানিকর। ভয়ানক মর্মপীড়ায় আক্রান্ত এসব পরিবারের পক্ষ থেকে দ্রুত মহিলা ডাক্তার ও মর্গ সহকারী নিয়োগ দেয়ার দাবি তোলা হলেও নানা কারণে তার বাস্তবায়ন ঘটছে না।

 

অভিযোগ রয়েছে, মর্গ সহকারীরা মদ্যপ অবস্থায় নারী ও মেয়ে শিশুদের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ কাটা-ছেঁড়া কাজটি করে থাকে।

সংবাদটি শেয়ার করুন




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Design & Developed by Freelancer Zone